Azilit

Azithromycin

Category:

Avilability: In Production

Indication
Azithromycin is indicated for infections caused by susceptible organisms, in lower respiratory tract infections including bronchitis and pneumonia, skin and soft tissue infections, otitis media and in upper respiratory tract infections including sinusitis, pharyngitis and tonsillitis.

Azithromycin is indicated in the treatment of uncomplicated genital infections due to Chlamydia trachomatis.

Dosage and administration
Adult: Azithromycin should be given as 500 mg once daily orally for 3 days or as an alternative, given over 5 days with 500 mg on day 1, then 250 mg on days 2-5.

For sexually transmitted diseases caused by Chlamydia trachomatis in adults, the dose is 1 g given as a single dose.

Normal adult dose is recommended for elderly patients.

Children: Over 6 months recommended dose is 10 mg/kg once daily for 3 days. Or,

Body weight 15-25 kg: 200 mg once daily for 3 days.
Body weight 26-35 kg: 300 mg once daily for 3 days.
Body weight 36-45 kg: 400 mg once daily for 3 days.

As common with other antibiotics, Azithromycin should be taken at least 1 hour before or 2 hours after meal and antacid.

Azilit

Azithromycin

Presentation
Azilit Suspension: Each 5 ml reconstituted suspension contains Azithromycin USP equivalent to 200 mg anhydrous Azithromycin.

Azilit-500 Tablet: Each tablet contains Azithromycin USP equivalent to 500 mg anhydrous Azithromycin.

Pharmacology
Azithromycin is an azalide antibiotic, subclass of macrolide class of antibiotics. Azithromycin acts by binding to the 50S ribosomal subunit of susceptible organisms and thus interferes with microbial protein synthesis. Azithromycin demonstrated activity in vitro, against a wide range of gram-positive and gram-negative bacteria including: Staphylococcus aureus, Streptococcus pneumoniae, streptococcus pyogenes (group A) and other Streptococcus species; Hemophilus influenzae and parainfluenzae; Moraxella catarrhalis; anaerobic including Bacteroides fragilis, Escherichia coli, Bordetella pertussis, Bordetella parapertussis, Borrelia burgdorferi, Hemophilus ducreyi, Neisseria gonorrheae and Chlamydia trachomatis. Azithromycin is also demonstrated activity in vitro against Legionella pneumophila, Mycoplasma pneumoniae and hominis; Campylobacter spp., Toxoplasma gondii and treponema pallidum.

Indication
Azithromycin is indicated for infections caused by susceptible organisms, in lower respiratory tract infections including bronchitis and pneumonia, skin and soft tissue infections, otitis media and in upper respiratory tract infections including sinusitis, pharyngitis and tonsillitis.

Azithromycin is indicated in the treatment of uncomplicated genital infections due to Chlamydia trachomatis.

Dosage and administration
Adult: Azithromycin should be given as 500 mg once daily orally for 3 days or as an alternative, given over 5 days with 500 mg on day 1, then 250 mg on days 2-5.

For sexually transmitted diseases caused by Chlamydia trachomatis in adults, the dose is 1 g given as a single dose.

Normal adult dose is recommended for elderly patients.

Children: Over 6 months recommended dose is 10 mg/kg once daily for 3 days. Or,

Body weight 15-25 kg: 200 mg once daily for 3 days.
Body weight 26-35 kg: 300 mg once daily for 3 days.
Body weight 36-45 kg: 400 mg once daily for 3 days.

As common with other antibiotics, Azithromycin should be taken at least 1 hour before or 2 hours after meal and antacid.

Side effects
Azithromycin is well tolerated with a low incidence of side effects. The majority of side effects were mild to moderate in nature and of gastrointestinal in origin with nausea, abdominal discomfort, vomiting, flatulence and diarrhea. Allergic reactions such as rash may have occurred and there have also been rare reports of serious hypersensitivity reactions. Reversible elevations in liver transaminases have been seen with a frequency similar to comparative macrolides and penicillins used in clinical trials. Transient mild reductions in neutrophil counts have occasionally been observed in clinical trials, although a causal relationship to Azithromycin has not been established.

Contraindication
It is contraindicated in patients hypersensitive to Azithromycin or any other macrolide antibiotic. Co-administration of ergot derivatives and Azithromycin is contraindicated. Azithromycin is contraindicated in patients with hepatic diseases.

Precaution
As with any antibiotic, observations for signs of super infection with non-susceptible organisms, including fungi, is recommended. No dose adjustment is needed in patients with renal impairment.

Use in pregnancy and lactation

Animal reproduction studies have demonstrated that Azithromycin crosses the placenta, but have revealed no evidence of harm to the fetus. There are no adequate and well controlled studies in pregnant women. Since animal reproduction studies are not always predictive of human response, Azithromycin should be used during pregnancy only if adequate alternatives are not available. No data on secretion of Azithromycin in breast milk is available, so Azithromycin should only be used in lactating mothers where adequate alternatives are not available.

Overdosage & treatment
There is no data on overdosage with Azithromycin. Typical symptoms of overdosage with macrolide antibiotics include hearing loss, severe nausea, vomiting and diarrhea. Gastric lavage and general supportive measures are indicated.

Drug interaction
Azithromycin absorption is reduced in presence of food and antacid. So, Azithromycin should be administered 1 hour before or 2 hours after taking food or antacid. In patients receiving ergot alkaloids Azithromycin should be avoided concurrently because of the possibility of ergotism resulting from interaction of Azithromycin with the cytochrome P-450 system. However, no cases of such interaction have been reported. Macrolides have been known to increase the plasma concentration of digoxin and cyclosporin. Therefore, if co-administration is necessary, caution should be exercised and serum level of digoxin and cyclosporin should be checked. There have been no pharmacokinetic drug interactions between Azithromycin and warfarin, theophylline, carbamazepine, methylprednisolone and cimetidine.  

Pharmaceutical precaution
Store in a cool, dry place and protect from light. Keep out of reach of children. Suspension should be shaken well before each use.

Packing
Azilit Suspension: Amber glass bottle containing dry granules for preparation of 15 ml suspension.
Azilit -500 Tablet: Box containing 1 × 3 tablets in blister pack.

এজিলিট

এজিথ্রোমাইসিন

উপস্থাপন
এজিলিট সাসপেনশন: সাসপেনশন তৈরীর পর প্রতি ৫ মিলিতে থাকে এজিথ্রোমাইসিন ইউএসপি যা ২০০ মিগ্রা অনার্দ্র এজিথ্রোমাইসিন এর সমতূল্য।
এজিলিট-৫০০ ট্যাবলেট: প্রতিটি ট্যাবলেটে রয়েছে এজিথ্রোমাইসিন ইউএসপি যা ৫০০ মিগ্রা অনার্দ্র এজিথ্রোমাইসিন এর সমতূল্য।

ফার্মাকোলজি
এজিথ্রোমাইসিন ম্যাক্রোলাইড শ্রেণীভুক্ত এজালাইড জাতীয় একটি এন্টিবায়োটিক। এজিথ্রোমাইসিন সংবেদনশীল জীবাণুগুলোর রাইবোজোমের ৫০এস নামক অংশে সংযুক্ত হয়ে জীবাণুর দেহে প্রোটিন তৈরীতে বাধা প্রদান করে থাকে। পরীক্ষাগারে এজিথ্রোমাইসিন গ্রাম পজিটিভ এবং গ্রাম নেগেটিভ দুই ধরণের ব্যাকটেরিয়ার বিরূদ্ধেই কাজ করে থাকে। উল্লেখযোগ্য ব্যাকটেরিয়ার মধ্যে স্ট্যাফাইলোকক্কাস অরিয়াস, স্ট্রেপ্টোকক্কাস নিউমোনি, স্ট্রেপ্টোকক্কাস পাইওজেনিস (গ্র“প-এ) এবং অন্যান্য স্ট্রেপ্টোকক্কাল প্রজাতি, হিমোফিলাস ইনফ্লুয়েঞ্জী এবং প্যারাইনফ্লুয়েঞ্জী, মোরাক্সেলা কাটার‌্যালিস, ব্যাকটোরইড্স ফ্রাজিলিস, ইসচেরিসিয়া কোলাই, বরডেটেলা পারটুসিস, বরডেটেলা প্যারাপারটুসিস, বরেলিয়া বার্গডারফেরি, হিমোফিলাস ডুক্রেই, নেসারিয়া গনোরি এবং ক্ল্যামাইডিয়া ট্রাকোম্যাটিস। এছাড়াও পরীক্ষাগারে অন্যান্য যে সমস্ত জীবাণুর বিরূদ্ধে কাজ করে সেগুলো হচ্ছে লিজিওনেলা নিউমোফিলা, মাইকোপ্লাজমা নিউমোনি এবং হোমিনিস, ক্যামপাইলোব্যাকটার প্রজাতি, টক্সোপ্লাজমা গন্ডি এবং ট্রিপোনেমা প্যালিডাম।

রোগ নির্দেশনা
এজিথ্রোমাইসিন সংবেদনশীল জীবাণুসমূহ দ্বারা সৃষ্ট সংক্রমণসমূহ যেমন, নিউমোনিয়া, ও ব্রঙ্কাইটিস সহ নিম্ন শ্বাসতন্ত্রের সংক্রমণ, চর্ম ও কোমল কোষ কলার সংক্রমণ, ওটাইটিস মিডিয়া, সাইনোসাইটিস, ফ্যারিংজাইটিস ও টনসিলাইটিস সহ উর্ধ্ব শ্বাসতন্ত্রীয় সংক্রমণে নির্দেশিত।
ক্ল্যামাইডিয়া ট্রাকোম্যাটিস ঘটিত জননাঙ্গের অজটিল সংক্রমণে এজিথ্রোমাইসিন নির্দেশিত।

মাত্রা ও গ্রহণবিধি
প্রাপ্তবয়স্ক: ৫০০ মিগ্রা এজিথ্রোমাইসিন দৈনিক একবার তিন দিন অথবা প্রথম দিন ৫০০ মিগ্রা এবং পরবর্তীতে দ্বিতীয় থেকে পঞ্চম দিন পর্যন্ত দৈনিক ২৫০ মিগ্রা।
ক্ল্যামাইডিয়া ট্রাকোম্যাটিস ঘটিত প্রাপ্তবয়স্কদের যৌনরোগে এক গ্রামের  একক মাত্রা।
বয়োবৃদ্ধদের জন্য মাত্রা প্রাপ্তবয়স্কদের অনুরূপ।

শিশু: ৬ মাসের বেশী বয়সের শিশুদের জন্য ১০ মিগ্রা/কেজি দৈনিক একবার হিসেবে ৩ দিন সেব্য অথবা দৈহিক ওজন ১৫-২৫ কেজি হলে ২০০ মিগ্রা দৈনিক একবার হিসেবে ৩ দিন, দৈহিক ওজন ২৬-৩৫ কেজি হলে ৩০০ মিগ্রা দৈনিক একবার হিসেবে ৩ দিন, দৈহিক ওজন ৩৬-৪৫ কেজি হলে ৪০০ মিগ্রা দৈনিক একবার হিসেবে ৩ দিন সেব্য।

অন্যান্য এন্টিবায়োটিকের অনুরূপ খাবার বা এন্টাসিড গ্রহণের কমপক্ষে ১ ঘন্টা পূর্বে অথবা ২ ঘন্টা পরে এজিথ্রোমাইসিন গ্রহণ করা উচিত। 

পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া
এজিথ্রোমাইসিন একটি সুসহনীয় ওষুধ এবং এর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার ঘটনা অত্যন্ত কম। অধিকাংশ  পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়াই মৃদু হতে মধ্যম প্রকৃতির এবং পাকান্ত্রীয় যেমন, বমি বমি ভাব, উদরের অস্বস্তি, বমি, পেট ফাঁপা ও ডায়রিয়া। ফুসকুড়ি জাতীয় এলার্জিক প্রতিক্রিয়া হতে পারে এবং মারাত্মক অতিসংবেদনশীল প্রতিক্রিয়াও লক্ষ্য করা গেছে। বিভিন্ন ক্লিনিক্যাল সমীক্ষায় তুলনীয় ম্যাক্রোলাইড ও পেনিসিলিনের মতোই এজিথ্রোমাইসিন ব্যবহারে লিভারের ট্রান্সএমাইনেজের অস্থায়ী বৃদ্ধি লক্ষ্য করা গেছে। মাঝে মধ্যে নিউট্রোফিল কাউন্টের ক্ষণস্থায়ী হ্রাস লক্ষ্য করা গেছে, যদিও এজিথ্রোমাইসিন ব্যবহারের সাথে এর সম্পর্ক প্রতিষ্ঠিত নয়।  

বিরুদ্ধ ব্যবহার
এজিথ্রোমাইসিন অথবা অন্য কোন ম্যাক্রোলাইড এন্টিবায়োটিকে অতিসংবেদনশীলতা থাকলে সেক্ষেত্রে এটি প্রতিনির্দেশিত। আরগট ডেরিভেটিভের সাথে এজিথ্রোমাইসিনের সহব্যবহার প্রতিনির্দেশিত। যকৃতের সমস্যার ক্ষেত্রেও এজিথ্রোমাইসিন ব্যবহার করা যাবেনা।
সতর্কতা

অন্যান্য এন্টিবায়োটিকের মতোই অসংবেদনশীল জীবাণুঘটিত অধিসংক্রমণের ঘটনার ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে। বৃক্কীয় সমস্যায় মাত্রা হ্রাসের প্রয়োজন হয় না।

গর্ভাবস্থায় ও স্তন্যদানকালে ব্যবহার
প্রাণীজ প্রজনন নিরীক্ষায় দেখা গেছে, এজিথ্রোমাইসিন যদিও প্ল্যাসেন্টা অতিক্রম করে, কিন্তু ভ্রƒণের উপর এর কোন ক্ষতিকর প্রভাব পরিলক্ষিত হয়নি। গর্ভবতী মহিলাদের ক্ষেত্রে ব্যবহারের ব্যাপারে পর্যাপ্ত তথ্য নেই। যেহেতু প্রাণীজ প্রজনন নিরীক্ষা  সব সময় মানুষের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য নাও হতে পারে, সেহেতু এক্ষেত্রে কোন বিকল্প না পাওয়া গেলেই এজিথ্রোমাইসিন ব্যবহার করা যেতে পারে। মাতৃদুগ্ধে এজিথ্রোমাইসিনের নিঃসরণ সংক্রান্তকোন তথ্য না থাকায় এক্ষেত্রেও অন্য কোন বিকল্প না পাওয়া সাপেক্ষে এজিথ্রোমাইসিন ব্যবহার করা যেতে পারে।

মাত্রাধিক্য ও চিকিৎসা
এজিথ্রোমাইসিনের মাত্রাধিক্যের কোন তথ্য পাওয়া যায়নি। ম্যাক্রোলাইড এন্টিবায়োটিকসমূহের মাত্রাধিক্যজনিত সাধারণ লক্ষণসমূহ হলো শ্রবণশক্তিলোপ, মাত্রাতিরিক্ত বমি বমি ভাব, বমি ও উদরাময়। পাকস্থলী ধৌতকরণ ও প্রচলিত প্রতিকারসমূহ এক্ষেত্রে নির্দেশিত।

ড্রাগ ইন্টার‌্যাকশন
খাদ্য অথবা এন্টাসিডের উপস্থিতিতে এজিথ্রোমাইসিনের শোষণ ব্যাহত হয় বিধায় খাদ্য অথবা এন্টাসিড গ্রহণের এক ঘন্টা আগে বা দুই ঘন্টা পরে এজিথ্রোমাইসিন সেবন করা উচিত। আরগট অ্যালকালয়েড গ্রহণকারী রোগীদের একই সাথে এজিথ্রোমাইসিন গ্রহণ করা উচিত নয়; কারণ এজিথ্রোমাইসিনের সাথে সাইটোক্রোম পি-৪৫০ এর বিক্রিয়ার ফলে আরগোটিজম দেখা দিতে পারে, যদিও এ ধরনের বিক্রিয়া দেখা যায়নি। ম্যাক্রোলাইডসমূহ যেহেতু সাইক্লোস্পোরিন ও ডিগক্সিনের সিরাম লেভেল বাড়িয়ে দেয়, সেহেতু যদি এজিথ্রোমাইসিনের সাথে সহব্যবহারের প্রয়োজন হয়, সাইক্লোস্পোরিন ও ডিগক্সিনের সিরাম লেভেল পর্যবেক্ষণসহ সতর্কতা অবলম্বন প্রয়োজন। ওয়ারফারিন, থিওফাইলিন, কার্বামাজিপাইন, মিথাইল প্রেডনিসোলন এবং সিমেটিডিনের সাথে এজিথ্রোমাইসিনের কোন ফার্মাকোকাইনেটিক ড্রাগ ইন্টার‌্যাকশন নেই।

ওষুধ বিষয়ক সতর্কতা
আলো থেকে দূরে, ঠাণ্ডা ও শুষ্ক স্থানে রাখুন। শিশুদের নাগালের বাইরে রাখুন। প্রতিবার সেবনের পূর্বে সাসপেনশন ভালভাবে ঝাঁকিয়ে নিন।    

প্যাকিং
এজিলিট সাসপেনশন: প্রতিটি বোতলে রয়েছে ১৫ মিলি সাসপেনশন তৈরীর জন্য শুষ্ক গ্রানিউল।
এজিলিট-৫০০ ট্যাবলেট: প্রতিটি বাক্সে রয়েছে ১ দ্ধ ৩ টি  ট্যাবলেট, ব্লিস্টার প্যাকে।